৪২ মণ ওজনের ‘টাইগার’র দাম ৩০ লাখ!

শনিবার, ২৭ জুলাই ২০১৯ | ১০:৪২ অপরাহ্ণ | 490 বার

৪২ মণ ওজনের ‘টাইগার’র দাম ৩০ লাখ!

দৈর্ঘ্য ৯ ফুট আর উচ্চতা সাড়ে ৫ ফুট। ওজন ৪২ মণ। কালো আর সাদা রঙ মিশ্রিত সুঠাম স্বাস্থ্যর অধিকারী ষাঁড় গরুটির নাম ‘টাইগার’। কোরবানি পশুর হাটে টাইগারের দাম হাঁকা হয়েছে ৩০ লাখ টাকা।

পাবনার চাটমোহর উপজেলার খামারী মিনারুল ইসলামের খামারে এই বিশাল ষাঁড় গরুটি দেখতে প্রতিদিন দুর-দুরান্ত থেকে ভীড় করছে উৎসুক মানুষ।

উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের ছোট গুয়াখড়া গ্রামের মৃত আলহাজ্ব আকুল প্রামানিকের ছেলে মিনারুল ইসলাম (৪৪) এক বছর চার মাস আগে প্রতিবেশী এক বন্ধুর ১৫-১৬ মণ ওজনের গরুটি কিনে নেন। এরপর দেশীয় পদ্ধতিতে নিজের খামারে প্রথমবারের মতো গরু মোটাতাজা শুরু ধরেন মিনারুল। ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে তার সেই ষাঁড় গরুটি। নাম দেন টাইগার। ফিজিয়ান জাতের এ গরুটির বর্তমান ওজন ৪২ মণ।

মিনারুলের স্ত্রী জাকিয়া সুলতানা জানান, তিনি তার স্বামীকে গরু পালনে সহযোগিতা করে থাকেন। টাইগার কে দেখতে প্রতিদিন অনেক লোক আসে। চারজন শ্রমিক গরুটির দেখাশোনা করেন।

গরুটির দেখাশোনার দায়িত্বরতদের মধ্য সবচেয়ে বয়োজৈষ্ঠ্য বারেক মোল্লা বলেন, আমার জীবনে এত বড় গরু কোনদিন পালিনি। গরুটির স্বভাব সুলভ খুবই ভালো। তবে বেশি লোকের ভীড় দেখলে রেগে যায়।

স্থানীয় গাজিউর রহমান জানান, আমাদের গ্রামের গর্ব, এমন বড় গরু আমরা আজো পাবনা জেলার মধ্যে দেখিনি।

খামারি মিনারুলের ছোট ভাই আলতাফ হোসেন বলেন, এত বড় গরু আমাদের এখানে প্রতিদিন মানুষ দল বেধে দেখতে আসে। গরুটির যদি ন্যায্য দাম পাই তাহলে আমার বড় ভাই কে আগামীতে গরু মোটাতাজাকরণে উৎসাহিত করবো।

খামারি মিনারুল ইসলাম জানান, গরুটা প্রথম যখন কিনি তখন ১ লাখ ৪২ হাজার টাকা দিয়ে, তখন ওজন ছিলো ১৫ থেকে ১৬ মণ। দেশীয় খাবার খাইয়ে মোটাতাজা করা হয়েছে। আমি এখন বর্তমান বাজার মূল্য চেয়েছি ৩০ লাখ টাকা। গরুর ওজন ৪২ মণ ছাড়িয়ে গেছে। এখন কাঙ্খিত দামে বিক্রি করতে পারলেই আমি খুশি।

পাবনা জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. আল মামুন হোসেন জানান, পাবনা জেলায় এবছর খামারিরা সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে পশুগুলো মোটাতাজা করেছেন। মিনারুলও তাদের একজন। তিনি তার গরুটির ভাল দাম পাবেন বলে প্রত্যাশা করি।

জেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগ সুত্রে জানায়, কোরবানীর উদ্দেশ্যে পাবনা জেলায় ২০ হাজার ৬৭৩টি খামারে গরু, ছাগল, ভেড়া, মহিষ মিলিয়ে ২ লাখ ১৮ হাজার পশু প্রস্তুত করা হয়েছে। এটি জেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা সম্ভব হবে জানা গেছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টঃ WebNewsDesign