স্বপ্নের নীড়ে ঈদ উদযাপন করবেন ৪২২ ভূমিহীন পরিবার

সোমবার, ১৯ জুলাই ২০২১ | ৬:২৬ অপরাহ্ণ | 100 বার

স্বপ্নের নীড়ে ঈদ উদযাপন করবেন ৪২২ ভূমিহীন পরিবার

স্বামী পরিত্যক্তা শিউলী খাতুন, সারাদিনের পরিশ্রম শেষে যেখানে রাত হয়, সেখানেই ঘুমিয়ে পড়তেন তিনি। কখনও ফুটপাত, কখনও বাঁধের উপর ছিল তার বসবাস। নিজের ঘরে ঘুমানো তার কাছে ছিল স্বপ্ন। কখনও ভাবতে পারেননি তার নিজের একটা বাড়ি হবে, জমি হবে।

অবশেষে তার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। নিজের নামে দুই শতক জমিসহ ঘর হয়েছে। হাড়ভাঙ্গা খাটুনি শেষে যেখানে সেখানে রাত কাটাতে হবে না আর। এখন থেকে নিজের ঘরে ফিরবেন। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার বাড়ি পাল্টে দিয়েছে তার জীবন। সত্যি হয়েছে তার স্বপ্ন।

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার বাসিন্দা শিউলী খাতুনের মতো পাল্টে গেছে ৪২২টি ভূমিহীন, গৃহহীন ও হতদরিদ্র পরিবারের জীবন। সবাই পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহারের ঘর। এবার নিজেদের স্বপ্নের নীড়ে প্রথম ঈদ উদযাপন করবেন তারা।

শুধু ঘরই নয়, থাকছে নিজ নামে দুই শতক জমি, স্বাস্থ সম্মত টয়লেট, বৈদ্যুতিক সংযোগ, সুন্দর বারান্দাসহ বসবাসের নিরাপদ সুবিধা। অনেকের কাছে এরকম একটি ঘরের মালিক হওয়া ছিল স্বপ্নের মতো। অবশেষে তাদের সে স্বপ্ন পুরণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উপকারভোগী শিউলী খাতুন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে নিজেদের স্থায়ী ঠিকানা হয়েছে। আগে একমাত্র মেয়ে নিয়ে বাঁধ বা ফুটপাতে থাকতে হতো। ঝড় বৃষ্টি শীতে চরম কষ্টে দিন কাটাতে হয়েছে। বিনামূল্যে নিজেদের মাথা গোজার ঠাঁই পেয়ে খুব আনন্দিত হয়েছি। প্রাণ খুলে দোয়া করি প্রধানমন্ত্রীর জন্য।

এদিকে, জীবনে প্রথম স্বপ্নের নীড়ে ঈদ উল আযহা উদযাপন করবেন সাঁথিয়া উপজেলার ৪২২টি ভূমিহীন পরিবার। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়ে খুশীর ঝিলিক উপকারভোগী পরিবার গুলোর চোখে মুখে।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জামাল আহমেদ বলেন, স্বল্প সময়ে কাজ করায় কিছু ভুলত্রæটি ছিল। তবে সে ভুল শুধরে ঘর সংস্কার করা হয়েছে। এরই মধ্যে ঘরগুলোতে বসবাস শুরু করেছেন অধিকাংশ পরিবার। নিজ ঘরে ঈদ করতে পেরে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন উপকারভোগীরা।

জেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্য মতে, প্রথম দফায পাবনা জেলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নির্মাণ করা হয়েছে ১ হাজার ৮৬টি ও দ্বিতীয় দফায় নির্মাণ করা হয়েছে ৩৮০টি। এর মধ্যে সাঁথিয়া উপজেলায় প্রথম দফায় ৩৭২ ও দ্বিতীয় দফায় ৫০টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টঃ WebNewsDesign