রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়েছেন কাদের

রবিবার, ০৩ মার্চ ২০১৯ | ৮:১৫ অপরাহ্ণ | 495 বার

রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়েছেন কাদের
সংগৃহিত ছবি
Advertisements

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার (০৩ মার্চ) বিকেলে তাকে দেখতে বিএসএমএমইউ-তে ছুটে যান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এসময় উভয়কেই ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার বিষয়ে বিস্তারিত জানান বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া গণমাধ্যমকে বলেন, প্রথমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসার পর ওবায়দুল কাদেরকে ডাকেন। এসময় প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে মিটমিট তাকানোর চেষ্টা করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, এরপর যখন রাষ্ট্রপতি আসেন তখন পুরোপুরি তাকিয়েছেন। এসময় ওবায়দুল কাদেরের শারিরীক অবস্থা এবং চিকিৎসার সার্বিক বিষয়ে রাষ্ট্রপতিকে জানানো হয়।

রোববার (০৩ মার্চ) সকালে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে প্রথমে বিএসএমএমইউ’র আইসিইউতে ও পরে সিসিইউতে ভর্তি হন কাদের। এনজিওগ্রাম করে তার হার্টে ৩টা ব্লক পেয়েছেন চিকিৎসকরা। এর মধ্যে একটিতে রক্ত সঞ্চালন সচল করা হয়েছে।

এদিেক, ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুর নেওয়ার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সও প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। চিকিৎসকদের সায় পেলে তাকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হবে। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন এ মুহূর্তে তাকে কোথাও নেওয়া সম্ভব নয়।

রোববার (৩ মার্চ) সন্ধ্যায় বিএসএমএমইউ’র ডা. মিল্টন হলে ওবায়দুল কাদেরের সর্বশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কে জানাতে আয়োজিত  সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া জানান, প্রধানমন্ত্রী বলে দিয়েছেন, যদি দেশীয় চিকিৎসকরা মনে করেন ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া লাগবে, তাহলেই কেবল নেওয়া হবে। উনি এখনও শঙ্কটাবস্থা পার করেননি। তাই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের রোগী বহনের সুযোগ-সুবিধাটাই মুখ্য। সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকদল আসছে বলে জানতে পেরেছি। তারা এলেই সব বলা যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে কাদেরের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা ওনার অবস্থা নিয়ে আশাবাদী। হয়তো তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। আবার নাও হতে পারেন। ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টা না পেরোলে অবস্থা সঠিকভাবে বলা সম্ভবই না। সকালে যখন তিনি হাসপাতালে আসেন তখন তার হার্টবিট বা হৃস্পন্দন বন্ধ ছিল। সে সময় থেকে এখন পরিস্থিতি ভালো হয়েছে। তাই আমরা আশাবাদী।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh