মৃত্যুর দুয়ার থেকে ছেলেকে ফেরাতে পথে পথে বাবা-মা

মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯ | ৪:৪৪ অপরাহ্ণ | 999 বার

মৃত্যুর দুয়ার থেকে ছেলেকে ফেরাতে পথে পথে বাবা-মা
বাবা-মা’ কোলে সোহান আলী
Advertisements

ছয় বছর বয়সী সোহান আলী। সমবয়সী শিশুরা যখন খেলাধূলা ও হাসি-ঠাট্টায় মেতে থাকে ঠিক সে সময় শিশুটি বিছানায় শুয়ে যন্ত্রনায় কাতরায়। দীর্ঘদিন শরীরে বয়ে বেড়াচ্ছে রোগ। মুখ থেকে হারিয়ে গেছে হাসি। দুরারোগ্য ‘মেনিনজোসেল’ (স্পাইনাল কর্ডের টিউমার) রোগে আক্রান্ত সোহান পাবনার চাটমোহর উপজেলার ধানকুনিয়া গ্রামের ভ্যান চালক ভুলন সরদার ও গৃহিণী বেলী খাতুনের একমাত্র ছেলে।

মলদ্বারের পাশে হয়েছে বেশ কয়েকটি বড় বড় গর্ত। হয়েছে দগ দগে ঘা। সেখান থেকে অঝোরে ঝড়ছে পুঁজ-রক্ত। বাকশক্তিও হারানোর পথে শিশুটি। দিন দিন মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে সোহান। চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে গিয়ে ইতিমধ্যে নিঃস্ব হয়ে গেছে পরিবারটি। তবে হাল ছাড়তে নারাজ অসহায় পরিবারটি। ছেলেকে সুস্থ করতে দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন অসহায় বাবা-মা। মৃত্যুর দুয়ার থেকে ছেলেকে ফেরাতে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

বাবা ভুলন সরদার জানান, জন্মের পর সোহানের মলদ্বারের ওপরে টিউমার দেখা দেয়। অল্প কয়েকদিনের মধ্যে সেটি ফেটে গিয়ে পুঁজ-রক্ত ঝরতে থাকে। স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক অনত্র নিয়ে যেতে বলেন। এরপর সোহানকে প্রথমে রাজশাহী এবং পরে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

নানা পরীক্ষা-নীরিক্ষার পর ধরা পড়ে সোহান দুরারোগ্য মেনিনজোসেল (স্পাইনাল কর্ডে টিউমার) রোগে আক্রান্ত। খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অপারেশনের পর রোগীর সুস্থ হওয়ার বিষয়ে চিকিৎসাকরাও নিশ্চিত নন। আর চিকিৎসার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যয় হবে ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকা।

চিকিৎসকের এমন কথা শুনে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছেন বাবা-মা। সংসার চালানো যেখানে কষ্টকর সেখানে ছেলের চিকিৎসা করানো ভ্যান চালক বাবার পক্ষে দুঃস্বপ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে। অর্থাভাবে বন্ধ হয়ে গেছে সোহানের ডাক্তার দেখানো ও ওষুধ খাওয়া।

একমাত্র ছেলের এমন করুণ অবস্থা কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না মা বেলী খাতুন। অশ্রুসিক্ত নয়নে তিনি বলেন, ‘ভাইরে আপনারা (সাংবাদিক) একবার আমার ছেলেকে নিয়ে একবার লেখেন। আমার বিশ্বাস মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নজরে এলে অন্যদের মতো আমার ছেলেও বেঁচে যাবে। আমাদের মতো গরীব মানুষের তিনিই (প্রধানমন্ত্রী) একমাত্র ভরসা।’

সোহানের পরিবারেকে সহযোগিতার ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমারকে জানানো হলে তিনি বলেন, ‘আমরা প্রশাসনিক সহযোগিতা প্রদান করবো, সমাজসেবা অধিদপ্তরসহ জেলা প্রশাসক স্যারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে সহযোগিতা আনার সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।’

সোহানের পরিবারকে সহযোগিতা করতে চাইলে এই নাম্বারে যোগাযোগ করা যেতে পারে–০১৭৭৪২৯২২২৪ (বিকাশ)

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh