মাদকের মতো সুদ ব্যবসা সমাজকে ধ্বংস করছে : পাবনার এসপি

রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১১:০৪ অপরাহ্ণ | 771 বার

মাদকের মতো সুদ ব্যবসা সমাজকে ধ্বংস করছে : পাবনার এসপি
Advertisements

‘মাদকের মতো সুদ ব্যবসা পরিবার-সমাজকে ধ্বংস করছে। মাদক যেমন একটি পরিবার সমাজকে ধ্বংস করে। তেমনি সুদ ব্যবসা একটি সমাজের বড় ব্যাধি। এই ব্যবসা বন্ধ করতে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স চলছে, সুদের কারবারিদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পাবনার চাটমোহর থানা চত্বরে ‘ওপেন হাউস ডে’ উপলক্ষে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন পাবনার নবাগত পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম পিপিএম।

পুলিশ সুপার বলেন, ‘যে ব্যক্তি সুদ ব্যবসা করে সে তার মায়ের সাথে জিনা করছে, যে ব্যক্তি সুদ কারবারি সে তার মৃত মায়ের সাথে জিনা করছে’। তিনি বলেন, কারো দাঁতে পোকা হলে ৭ জন সুদ ব্যবসায়ীর নাম লিখে গলায় ঝুলিয়ে দিলে দাঁতের পোকা বের হয়ে আসতো এমন কথা সমাজে প্রচলিত আছে। তাই আসুন আমরা ধর্মীয় বিধি নিষেধ মেনে জীবনযাপন করি। তাহলেও সমাজের সকল আধার ঘুচে যাবে।

চাটমোহর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বদরুদ্দোজা’র সভাপতিত্বে এবং ওসি তদন্ত শরিফুল ইসলাম এর পরিচালনায় ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমার, পৌরসভার মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) তাপস কুমার পাল, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ইকতেখারুল ইসলাম, পাবনা পল্লী বিদ্যুত সমিতি-১ এর জিএম প্রকৌশলী মাশফিকুল হাসান, জেলা পরিষদ সদস্য সাইদুল ইসলাম পলাশ, প্যানেল মেয়র নাজিম উদ্দিন মিয়া, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নবীর উদ্দিন মোল্লা, আলহাজ্ব আজাহার আলী,  রাশেদুল ইসলাম বকুল, নজরুল ইসলাম, সরদার আজিজুল হক, হানিফ উদ্দিন, মকবুল হোসেন, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ শরীফ মাহমুদ সন্জু, চাটমোহর প্রেসক্লাব সভাপতি ও দৈনিক চলনবিল সম্পাদক রকিবুর রহমান টুকুন, সাধারণ সম্পাদক সঞ্জিত সাহা কিংশুক, উপজেলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি কেএম বেলাল হোসেন স্বপন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল আলীম, যুগান্তর প্রতিনিধি পবিত্র তালুকদার প্রমুখ।

এলাকাবাসী উন্মুক্ত আলোচনায় অভিযোগ করেন, ছাইকোলা, মূলগ্রামসহ উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নে সুদে কারবারি সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। এ কারণে গ্রামাঞ্চলে কিছু কিছু পরিবার ফুলে গলাগাছ হয়ে গেলেও চড়া মুনাফায় সুদ গ্রহনকারী পরিবার নিঃস্ব থেকে নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি ভ্রাম্যমান একটি জুয়ারু চক্র ডিবিগ্রাম, মুলগ্রাম,ছাইকোলা,মথুরাপুরের বিভিন্ন স্থানে জুয়া পরিচালনা করছে।

চলতি বর্ষা মৌসুমে চলনবিলে নৌকা ভ্রমনের নামে ভ্রাম্যমান নর্তকী নাচানো এবং মদের আসর বসানো হচ্ছে। চাটমোহরে মাদক ব্যবসা কমলেও তা বন্ধ হয়নি। চাটমোহরের সার্বিক আইন-শৃংখলা ভাল রয়েছে বলে জানান এলাকাবাসী। বাল্যবিয়ে বন্ধে কাজ করছে প্রশাসন।

এ সকল অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম পিপিএম বলেন, যারা জুয়ারু তারা আপনাদের এলাকার সন্তান। তারা জুয়া খেলুক অথবা না খেলুক আপনারা তাদের তালিকা তৈরী করে পুলিশকে জানান। অথবা তাদের আটক করে থানায় সোপর্দ করুন। পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

তিনি ইউপি চেয়ারম্যানদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, এলাকার ছোট-খাটো সমস্যা সমাধানে আপনারা গ্রাম্য আদালত পরিচালনা করবেন। চলনবিলে নর্তকী নাচানো এবং মদের আসর বন্ধে থানা পুলিশকে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন।

ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠানে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সাংবাদিক, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh