মাদকসেবনে বাঁধা: যুবককে সারারাত বেঁধে নির্যাতনে হত্যার অভিযোগ

শনিবার, ০২ অক্টোবর ২০২১ | ৪:১১ অপরাহ্ণ | 201 বার

মাদকসেবনে বাঁধা: যুবককে সারারাত বেঁধে নির্যাতনে হত্যার অভিযোগ

মাদক সেবনে বাঁধা দেওয়া নিয়ে বিরোধের জেরে বিপ্লব ফকির (২৪) নামে এক যুবককে সারারাত বেঁধে রেখে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (০২ অক্টোবর) দুপুরে রাজশাহী নেবার পথে বিপ্লব মারা যায়। এর আগে শুক্রবার (০১ অক্টোবর) রাতে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার জিগাতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদে তাকে নির্যাতন করা হয়।

নিহত বিপ্লব উপজেলার পাকশী ইউনিয়নের চররুপপুর জিগাতলা গ্রামের পান্না ফকিরের ছেলে। তিনি রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন। ঘটনায় জড়িত প্রধান অভিযুক্ত দুই ভাইকে আটকে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

পূর্ব শত্রুতার জেরে সারারাত বেঁধে রেখে হত্যার ঘটনাটি ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেন রুপপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আতিকুল ইসলাম।

পরিবারের বরাত দিযে তিনি বলেন, নিহত বিপ্লবের চাচা রতন আলীর সাথে কিছুদিন পূর্বে প্রতিবেশি পলাশ ফকিরের ছেলে শান্ত ফকির (২৩) এর কথা কাটাকাটি হয়। সে সময় নিহত বিপ্লবের চাচা রতন শান্তকে চড় থাপ্পড় মারেন। সে সময়ই শান্ত বিপ্লব ও রতনকে হত্যার হুমকি দিয়েছিলেন।

তিনি জানান, শুক্রবার রাত ৯টায় শান্ত ও তার ভাই অন্তর কৌশলে মোবাইল ফোনে বিপ্লবকে ডেকে নেয়। এরপর পার্শ্ববর্তী জিগাতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদে নিয়ে তাকে মুখ বেঁধে রেখে সারারাত মারপিটসহ নির্যাতন চালায়। রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও বিপ্লবের পরিবার তাকে খুঁজে পায়নি। সকালে প্রতিবেশী জ্যোৎস্না নামে এক মহিলাকে শান্ত নিজেই বলে বিপ্লব স্কুলের ছাদে আছে।

নিহত বিপ্লবের বাবা পান্না ফকির বলেন, আমার ভাই রতন ও ছেলে বিপ্লব অভিযুক্ত শান্ত ও তার কয়েক বন্ধুকে মাদক সেবনে বাঁধা দিয়েছিল। সে কারণে শান্ত তাদের উপর ক্ষিপ্ত ছিল। প্রতিবেশীর মাধ্যমে খবর পেয়ে শনিবার সকাল ৮টায় স্কুলের ছাদ থেকে বিপ্লবকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়। তিনি জানান, বিপ্লবের সারা শরীরে অনেক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, খবর পেয়ে নিহত বিপ্লবের বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হবে। খুনের পুরো বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযুক্তদের আটক করতে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টঃ WebNewsDesign