একুশে গ্রন্থমেলায়

পরমাণু শক্তি বিষয়ক তিনটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

শনিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৩:৪৮ অপরাহ্ণ | 402 বার

পরমাণু শক্তি বিষয়ক তিনটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অতিথিরা
Advertisements

একুশে গ্রন্থমেলা-২০১৯ উপলক্ষ্যে বাংলা ভাষায় অনুদিত এবং রচিত পরমাণু শক্তি বিষয়ক তিনটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।

‘পরমাণুর দিগন্ত’, ‘পরমাণু শিল্পে বিভিন্ন পেশা’ শীর্ষক বইগুলো রুশ ভাষা থেকে অনুবাদ করা হয়েছে, অন্যদিকে কমিক বই ‘অণুর অপ্রত্যাশিত অভিযান’ বাংলাদেশে রচিত ও সম্পাদিত।

বইগুলো যৌথভাবে প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন এবং রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু শক্তি কমিশন- রসাটম।

শনিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী সকালে একুশে গ্রন্থমেলা প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে বইগুলোর মোড়ক উন্মোচন করেন বাংলাদেশ সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালক ড. শৌকত আকবর, রসাটমের প্রতিনিধি দারিয়া সাভচেনকাসহ অন্যান্যরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের জনগণকে পরমাণু শক্তি সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা প্রদান এবং পরমাণু শক্তির ইতিবাচক দিকগুলো তুলে ধরার মাধ্যমে ভ্রান্ত ধারণা দূরীকরণের লক্ষ্যে বাংলা ভাষায় সহজপাঠ্য এই বইগুলো প্রকাশের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ইতোপূর্বেও বাংলা ভাষায় অনুদিত এবং প্রকাশিত আরও তিনটি বই- ‘পারমাণবিক শক্তি সম্পর্কিত প্রশ্নোত্তর’, ‘পরমাণু পাঠ- অ আ ক খ’ এবং ‘পরমাণু শক্তি জগৎ’ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সাধারণ জনগণের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে।

পরমাণুর দিগন্ত বইটিতে বিভিন্ন ক্ষেত্রে পরমাণু শক্তির ব্যবহার নিয়ে আলোচনা স্থান পেয়েছে। পরমাণু শিল্পে বিভিন্ন পেশা বইটি পড়ে পাঠকরা পরমাণু শিল্পের সঙ্গে সম্পর্কিত বিভিন্ন পেশা সম্পর্কে ধারণা পাবেন।

অন্যদিকে কার্টুন ভিত্তিক অণুর অপ্রত্যাশিত অভিযান বইটি পরমাণু শক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন ভ্রান্ত ধারণা, কুসংস্কার এবং সামাজিক কুপ্রথার বিরুদ্ধে বিজ্ঞানমনষ্ক সাধারণ একটি গ্রাম্য বালিকার প্রতিবাদ ও সংগ্রাম নিয়ে রচিত হয়েছে।

সম্পূর্ণ চার রঙে প্রকাশিত সচিত্র ও আকর্ষণীয় এই বইগুলো বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের স্টল (৭৪ এবং ৭৫) এ পাওয়া যাচ্ছে। বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পাদিত একটি আন্ত:সরকারি চুক্তির আওতায় রসাটম পাবনা জেলার রুপপুরে বাংলাদেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মানে সহায়তা করছে। কেন্দ্রটিতে প্রতিটি ১,২০০ মেগা ওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন ২টি ইউনিট থাকবে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh