নির্বাচনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০ দলীয় ঐক্যজোট

রবিবার, ১১ নভেম্বর ২০১৮ | ৫:০১ অপরাহ্ণ | 387 বার

নির্বাচনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০ দলীয় ঐক্যজোট
প্রতিকী ছবি
Advertisements

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটগতভাবে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০ দলীয় ঐক্যজোট। একই সঙ্গে বড়দিন ও অন্যান্য কারণে নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল এক মাস পেছানোর দাবি জানিয়েছে জোটটি।

রোববার (১১ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

জোটের এই ঘোষণা পাঠ করেন সমন্বয়ক এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ। এ সময় ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে অলি আহমদ বলেন, দেশে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ও জনগণের প্রতি আস্থা আছে বলেই এত প্রতিকূলতার মাঝেও ২০ দলীয় জোট সর্বসম্মতভাবে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটবদ্ধভাবে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গেও আমাদের নির্বাচনী সমঝোতা হবে। আমরা বিশ্বাস করি সরকারের দুর্নীতি, অনাচার, তিস্তার পানি আনতে ব্যর্থতাসহ রাষ্ট্রীয় স্বার্থরক্ষায় সীমাহীন ব্যর্থতার বিরুদ্ধে রায় দেওয়ার সুযোগ জনগণকে দেওয়া উচিত। সে কারণেই আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো। যাতে জনগণ তাদের ক্ষোভ ও বেদনা প্রতিবাদ প্রকাশের মাধ্যমে গণতন্ত্র সুশাসন প্রতিষ্ঠার সুযোগ পায়।’

কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বলেন, আমরা দাবি করছি, সরকার দেশনেত্রীকে (খালেদা জিয়া) মুক্তি দিয়ে তাকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ দেবে; অবিলম্বে জাতীয় সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করবে; অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশন সরকারের প্রভাবমুক্ত থেকে সততা, নিষ্ঠা ও সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবে; নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের কোনো ধরনের হয়রানি করবে না।

এক প্রশ্নের জবাবে অলি আহমদ বলেন, তফসিল না পেছালে ২০ দলীয় জোট পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেবে। আসন বণ্টনের বিষয়ে তিনি বলেন, জোটের নেতারা বসে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। এখনও তা চূড়ান্ত নয়।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সদস্য মাওলানা আব্দুল হালিম, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহীম, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, ইসলামী ঐক্যজোটের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাওলানা আব্দুর রকিব, মুসলিম লীগের সভাপতি এএইচ এম কামরুজ্জামান, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, জাগপার সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, ন্যাপ ভাসানীর সভাপতি অ্যাডভোকেট আজহারুল ইসলাম, এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh