আহত শ্রমিককে ভ্যান উপহার

নববর্ষে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১

মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯ | ১১:৫৯ অপরাহ্ণ | 381 বার

নববর্ষে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১
শাহাদৎকে অটোভ্যান প্রদান করছেন সমিতির জেনারেল ম্যানেজারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা
Advertisements

বাংলা নতুন বছরের প্রথমদিনে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্মকর্তারা। সমিতিতে কাজ করতে গিয়ে গুরুতর আহত শ্রমিক শাহাদৎ হোসেনকে একটি অটোভ্যান প্রদান করলেন তারা। আর আহত হওয়ার ৬ বছর পরেও তাকে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ মনে রেখে আয়ের উৎস করে দেয়ায় খুশি শাহাদৎ।

প্রায় ছয় বছরের আগের ঘটনা। সেদিন প্রতিদিনের মতো সকালে বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন পাবনা পল্লী সমিতি-১ এ দৈনিক মুজুরির ভিত্তিতে কাজ করা শ্রমিক শাহাদৎ হোসেন। যা আয় হতো সেই টাকায় স্ত্রী ও দুই ছেলে-মেয়ের মুখে খাবার তুলে দিতেন তিনি। কিন্তু বিধিবাম; বিদ্যুতের পোলে উঠে কাজ করার সময় পড়ে গিয়ে গুরুতর আঘাত পেয়ে শয্যাশায়ী হয়ে পড়েন শাহাদৎ। কেটে ফেলতে হয় বাম হাতের তিনটি আঙ্গুল।

সেই সময় পল্লী বিদ্যুৎ থেকে পাওয়া আর্থিক সহযোগিতা ও সহায়-সম্বল বলতে যা ছিল সবটুকু বিক্রি করে চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েন তিনি। ধার-দেনা করে চলছিল সংসার।

তবে দীর্ঘদিন পর সুস্থ হলেও অভাব অনটনের মধ্যে দিন কাটছিল পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের আবদুস সবুরের ছেলে শাহাদৎ হোসেনের। অনেকে শাহদৎকে ভুলে গেলেও ভোলেননি পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্মকর্তারা। এগিয়ে এলেন তার পরিবারের পাশে।

সে যেন উপার্জন করে সংসার চালাতে পারে সেজন্য রোববার বাংলা নববর্ষের দিন পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর অর্থায়নে শাহাদৎ-এর হাতে তুলে দেয়া হলো একটি ব্যাটারি চালিত নতুন অটোভ্যান। সহমর্মিতার অন্যন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্মকর্তারা।

ভ্যান প্রদান কালে উপস্থিত ছিলেন সমিতির জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মাশফিকুল হাসান, এজিএম (প্রশাসন) শামীম কাওসার, এজিএম (ইএন্ডসি) মো. শফিউদ্দিন, এজিএম (ওএন্ডএম) মো. নুরুজ্জামান প্রমুখ।

নতুন ভ্যান পেয়ে আবেগাপ্লুত শাহাদৎ হোসেন জানান, ‘আমি হতাশ হয়ে পড়েছিলাম। সংসার চালাতে পারছিলাম না। ভাবতেই পারিনি এতো বছর পর স্যাররা আমাকে মনে রাখবেন। এখন সৎভাবে উপার্জন করে সংসার চালাতে পারবো। এটা আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ উপহার।’

এজিএম (প্রশাসন) শামীম কাওসার জানান, ‘শাহাদৎ দৈনিক মুজুরির ভিত্তিতে পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। তার অনেক ঘাম ও পরিশ্রম মিশে আছে সমিতিতে। অন্তত সে যেন পরিবার নিয়ে দু’বেলা খেতে পারে এজন্য এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামীতে তাকে সমিতির কোন জোনাল অফিসে কাজ দেয়া হবে।’

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh