পরপর ৪টি মোটর সাইকেল চুরি

চাটমোহরে মোটর সাইকেল চুরির হিড়িক

বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯ | ১:০৫ পূর্বাহ্ণ | 709 বার

চাটমোহরে মোটর সাইকেল চুরির হিড়িক
প্রতীকি ছবি
Advertisements

পাবনার চাটমোহরে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে মোটর সাইকেল চুরির ঘটনা। গত দশ দিনের ব্যবধানে সাংবাদিক, ব্যবসায়ীসহ মোট চার জনের মোটর সাইকেল চুরির ঘটনা ঘটেছে। চোরচক্র একের পর এক মোটর সাইকেল চুরি করে নির্বিঘ্নে পালিয়ে যায়। সংঘবদ্ধ একটি চোর চক্র পরিকল্পনা করে এসব চুরির ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ।

তবে এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা থানঅয় অভিযোগ দিলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন গাড়ি উদ্ধার বা এর সাথে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি। চোর আতংকে ঘরে কিংবা বাইরে মোটর সাইকেল রেখে অফিস-আদালতসহ হাটে-বাজারে প্রবেশ করতে ভয় পাচ্ছে মোটর সাইকেল মালিকরা।

থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে উপজেলার ধুলাউড়ি গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী আবদুল মতিনের ব্যবহৃত বাজাজ ডিসকভার ১৩৫ সিসি মোটর সাইকেল (রেজিষ্ট্রেশন নম্বর পাবনা-ল ১১-১৫০২) বাড়ির সামনে থেকে চুরি হয়।

এর আগে সোমবার (২০ মে) দুপুরে চাটমোহর পৌর শহরের কালীসাগর পাড় এলাকা থেকে সুব্রত কুমার দাস নামের এক ব্যক্তির ব্যবহৃত বাজার ডিসকভার নীল-কালো রংয়ের ১৩৫ সিসি (ঢাকা মেট্রো ল-১৫-৮৭৬০) গাড়িটি চুরি হয়।

এদিকে রোববার (১৯ মে) সন্ধ্যায় পৌর শহরের কাজীপাড়া মহল্লা থেকে চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও সাংবাদিক বেলাল হোসেন স্বপনের ব্যবহৃত বাজাজ প্লাটিনা ১০০ সিসি (পাবনা-হ-১৩-৬৪৬৮) লাল রংয়ের মোটর সাইকেলটি তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে থেকে চুরি হয়।

অপরদিকে ১০মে বিকেলে পার্শ্ববর্তী ফরিদপুর উপজেলার সোনাহারা গ্রামের সামিউল ইসলাম তার বন্ধু সুদেব শীলের বিয়ের জন্য চাটমোহর পৌর শহরের দোলং গ্রামে কনে দেখতে এসে তার ব্যবহৃত ডিসকভার ১২৫ সিসি (পাবনা-হ-১৩-১৪৯৩) মোটর সাইকেলটি বাড়ির বাইরে রেখে ভেতরে গেলে সেই গাড়িটিও চুরি হয়।

ঈদের আগে হঠাৎ করেই একের পর মোটর সাইকেল চুরির ঘটনায় চাটমোহরে এখন চোর আতংক বিরাজ করছে। খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া কেউ মোটর সাইকেল বাড়ির বাইরে বের করছেন না।

তবে পুলিশের নিষক্রিয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ভুক্তভোগীরা। কারণ এখন পর্যন্ত কোন গাড়ি উদ্ধার বা জড়িত এর সাথে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি তারা।

চুরির বিষয়ে চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও সাংবাদিক বেলাল হোসেন স্বপন বলেন, খুব কষ্ট করে মোটর সাইকেলটি কিনেছিলাম। ছেলে-মেয়েকে স্কুলে আনা-নেয়া এবং ব্যবসার প্রয়োজনে খুব উপকার হতো। কিন্তু শখের মোটর সাইকেলটি চুরি হওয়ায় খুব কষ্ট পেয়েছি। এজন্য পুলিশের আরও আন্তরিক হতে হবে। পুলিশ ইচ্ছা করলে চোর চক্রকে ধরতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সহকারি পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন জানান, আসলে মোটর সাইকেল চুরির ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় আমরাও খুব উদ্বিগ্ন। তবে বিভিন্ন ক্লু মাথায় নিয়ে কাজ করছি। চুরি যাওয়া মোটর সাইকেল উদ্ধার বা জড়িতদের খুঁজে বের করতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। আশা করছি কয়েকদিনের মধ্যে ভাল সংবাদ পাওয়া যাবে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh