চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেয়া যাত্রীর মৃত্যু ; পরিবারের দাবি ‘হত্যা’

শুক্রবার, ২০ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৯:৫৬ অপরাহ্ণ | 440 বার

চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেয়া যাত্রীর মৃত্যু ; পরিবারের দাবি ‘হত্যা’
নিহত সুমন ও তার শিশু কন্যা। (পারিবারিক ফাইল ছবি)
Advertisements

ভাড়া না দেয়ায় চলন্ত বাস থেকে জোর করে নামিয়ে দেয়ার পর সুপার সনি বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মারা গেছেন সুমন হোসেন (৩৫) নামের এক যাত্রী। পাবনার পাকশী লালন শাহ সেতুর টোল প্লাজার কাছে বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুমন ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ঝাউতলা গ্রামের মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে।

পরিবারের অভিযোগ, ভাড়া না পেয়ে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দিয়ে সুমনকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার বিচার দাবি করেছেন স্বজনরা। ঘটনার পর টোল প্লাজার সিসিটিভির ফুটেজ দেখে বাসটি আটকের চেষ্টা করছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

স্থানীয় ও পারিবারকি সুত্র জানায়, সুমন হোসেন ঈশ্বরদীর পাকশী রুপপুর বাজারে হোটেলের কর্মচারী ছিলেন। সম্প্রতি পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কারণে সেখান থেকে সকল দোকানপাট উচ্ছেদ করে প্রশাসন। এরপর কিছুদিন বেকার থাকার পর কুষ্টিয়ার একটি হোটেলে কাজ নেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর রুপপুর মোড় থেকে কুষ্টিয়াগামী সুপার সনি নামের বাসে ওঠেন সুমন। ভাড়া না থাকায় বাসের কন্ট্রাক্টরের সাথে কথা কাটাকাটি হয় তার। এক পর্যায়ে সন্ধ্যা ৭টা ৩৯ মিনিটে বাসটি লালন শাহ সেতু টোল প্লাজা অতিক্রম করার সময় চলন্ত অবস্থায় সুমনকে বাস থেকে জোর করে নামিয়ে দেয়া হয়। এরপর ওই বাসের পেছনের চাকায় পিষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন তিনি। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে রাত এগারোটার দিকে চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত সুমনের চাচা গিয়াস উদ্দিন ও ফুফু মোছা: বেগম অভিযোগ করে বলেন, ভাড়া না পেয়ে চলন্ত বাস থেকে জোর করে ফেলে দিয়ে সুমনকে হত্যা করেছে বাসের হেলপার কন্ট্রাক্টর। সে খুব ভাল ছেলে ছিল। পরিবারের প্রতি খুব কর্তব্যপরায়ন ছিল। এ ঘটনার বিচার দাবি করেন তারা।

লালন শাহ সেতুর টোল প্লাজার সুপারভাইজার খালিদ মাহমুদ আলম জানান, সিসিটিভির ফুটেজে দেখা গেছে চলন্ত বাস থেকে তাকে ফেলে দেয়া হয়েছিল। তারা দ্রুত স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় আহত সুমনকে হাসপাতালে পাঠিয়েছিলেন। পরে জানতে পারেন আহত সুমন মারা গেছেন।

পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম জানান, ইতিমধ্যে বাসের চালক হেলপারের নাম পরিচয় সনাক্ত করা হয়েছে। বাসটি আটকসহ জড়িত আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh