কেশবপুরে ছাত্রীকে ধর্ষণ ; অবৈধভাবে গর্ভপাতের অভিযোগ

শুক্রবার, ২৮ জুন ২০১৯ | ৩:১১ অপরাহ্ণ | 1615 বার

কেশবপুরে ছাত্রীকে ধর্ষণ ; অবৈধভাবে গর্ভপাতের অভিযোগ
প্রতিকী ছবি

যশোরের কেশবপুরে ৯ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ফুসলিয়ে ধর্ষণ ও অবৈধভাবে গর্ভপাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় ছাত্রীর মামা বাদী হয়ে অভিযুক্ত বিল্লাল হোসেনের (৪৫) নামে নরপশুর বিরুদ্ধে কেশবপুর থানায় মামলা করেছে। চুরির ভয়ে পুতে রাখা নবজাতকের লাশের পাশে পুলিশ পাহারা বসানো হয়েছে।

কেশবপুর থানায় মামলা ও সরেজমিন জানা গেছে, উপজেলার সন্যাসগাছা গ্রামের কিশোরেী (১৬) ছোটবেলা থেকেই তার মামা উপজেলার সারুটিয়া গ্রামের পূর্বপাড়ায় মিন্টু সরদারে বাড়ীতে থেকে লেখাপড়া করে আসছে। সে বর্তমানে নারায়নপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী।

প্রতিবেশী বিল্ল­াল হোসেন প্রায় মিন্টুর বাড়ীতে আসাযাওয়ার সুবাদে কিশোরীর সাথে তার পরিচয় হয়। বিল্লালকে নানাভাই বলে ডাকত ওই কিশোরী। লম্পট বিল্লাল তাকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ মেলামেশা করত। এক পর্যায়ে সে ৬/৭ মাসের গর্ভবতি হয়ে পড়ে। বিয়টি সে বিল্লালকে জানালে গত ২৪ জুন সে বাচ্চা নষ্ট করার ঔষধ তাকে খেতে বাধ্য করে।

মামা-মামী বাড়ীতে না থাকার সুযোগে পরেরদিন সুচতুর বিল্লাল নিজে বাড়ীতে এসে বাথরুমের মধ্যে কিশোরীর পেটের বাচ্চা অবৈধভাবে গর্ভপাত ঘটায়। অবৈধ গর্ভপাতের ফসল নবজাতকের লাশটি প্রথমে পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। ঘটনা জানাজানি হলে পরে পুকুর থেকে ঐ লাশটি তুলে কবরস্থানে পুঁতে রাখে। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে এলাকার একটি মহল ব্যাপক চেষ্টা চালায়।

খবর পেয়ে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহিন ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠায়। চুরির আশংকায় উক্ত নবজাতকের লাশের পাশে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহিন জানান, ধর্ষন ও অবৈধ গর্ভপাতের অভিযোগ এনে বিল্লালের বিরুদ্ধে ছাত্রীর মামা মিন্টু মামলা দায়ের করেছে। যার নং ১৬। তারিখ ২৬-০৬-১০ ইং। আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আদালতের অনুমতি পেলে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মর্গে পাঠানো হবে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টঃ WebNewsDesign