ঈশ্বরদীতে চাঁদাবাজির প্রতিবাদে ব্যসায়ীদের বিক্ষোভ

বৃহস্পতিবার, ১০ জানুয়ারি ২০১৯ | ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ | 602 বার

ঈশ্বরদীতে চাঁদাবাজির প্রতিবাদে ব্যসায়ীদের বিক্ষোভ

পাবনার ঈশ্বরদী শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চুর বিরুদ্ধে ঈশ্বরদী বাজারে অব্যাহতভাবে চাঁদাবাজি করার অভিযোগ করেছেন বাজারের সাধারণ ব্যবসায়ীরা। চাঁদা না দেওয়ায় তাপস কুমার সাহা নামের এক মিষ্টি ব্যবসায়ীকে তার দোকানে গিয়ে মঙ্গলবার রাতে লাঞ্ছিত করে প্রাণনাশের হুমকি দেন তিনি।

এ ঘটনা জানাজানি হলে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন ঈশ্বরদী বাজারের সাধারণ ব্যবসায়ীরাও। চাঁদাবাজি ও হুমকির প্রতিবাদে বুধবার সকালে বিক্ষোভ মিছিল ও পথসভা করেছে সাধারণ ব্যাবসায়ী ও হিন্দু সম্প্রদায়। ঈশ্বরদী বাজারের প্রথম গেট সংলগ্ন রাস্তায় এসব কর্মসূচী পালন করা হয়।

বিক্ষোভ মিছিল চলাকালে অভিযুক্ত শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু ও সহ-সভাপতি ইউনুছ আলী মিন্টু একদল সন্ত্রাসী এনে বিক্ষোভ মিছিল ভন্ডুল করে দিলে বিক্ষোভকারীরা শহরের কলেজ রোডে ঠাকুরবাড়ি মন্দির প্রাঙ্গনে প্রতিবাদ সভা করে।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন ঈশ্বরদী পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুনিল চক্রবর্তী, যুগ্ম সম্পাদক মিলন কর্মকার, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার চক্রবর্তী, জাতীয় আদীবাসী পরিষদের সভাপতি মদন দাস, পূজা উদযাপন পরিষদের পৌর শাখার সভাপতি বাবু পান্ডে, বাংলাদেশ ছাত্র ঐক্য যুব পরিষদের সভাপতি তাপস কুমার সাহা, সাধারণ সম্পাদক অনন্ত কর্মকার, হিন্দু মহাজোটের ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি উত্তম কুমার সাহা, আদীবাসী ছাত্র পরিষদ পাবনা জেলা শাখার সভাপতি মিঠুন রবি দাস প্রমুখ।

প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, অফিস করার নামে প্রায়ই শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু বাজারের ছোট-বড় বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের নিকট নিজে গিয়ে চাঁদাবাজি করেন। কয়েকদিন আগে নবীন ফ্যাশনের মালিক রবিউন নবীর নিকট থেকে জোরপূর্বক ১০ হাজার টাকা চাঁদা নেন তিনি। মঙ্গলবার রাতে বাজারের পাল মিস্টান্ন ভান্ডারে গিয়ে মালিক তাপস কুমার সাহার নিকট একই কথা বলে চাঁদা চাইলে তিনি দিতে অস্বীকার করেন। এসময় তাকে বুধবার সকালের মধ্যে চাঁদা পৌঁছে না দিলে দোকান ভাংচুর ও ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেন বলে অভিযোগ করেন তাপস।

এদিকে এ ঘটনা জানাজানি হলে বুধবার সকালে বাজারে এসে শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চুর বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠেন ব্যবসায়ীরা। একে একে অসংখ্য ব্যাবসায়ীরা সেখানে জড়ো হয়ে তাদের নিকটও চাঁদা চাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। এসময় ব্যবসায়ীরা ‘এই চাঁদাবাজ সভাপতির অপসারণ চাই’ বলে শ্লোগান দেন।

এসব অভিযোগ সম্পর্কে তাপস কুমার সাহাকে হুমকি দেওয়ার কথা স্বীকার করে শফিকুল ইসলাম বাচ্চু বলেন শিল্প ও বণিক সমিতির নতুন অফিস করা হচ্ছে সে জন্য ব্যবসায়ীদের নিকট ‘সহযোগিতা’ চাওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
khojkhobor.net-এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইটি সাপোর্ট ও ম্যানেজমেন্টঃ Creators IT Bangladesh

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টঃ WebNewsDesign